Logo
শিরোনাম
টাঙ্গাইল গোপালপুরের মাহমুদপুরের গনহত্যা দিবস স্মরণে স্মৃতিস্তম্ভ উদ্বোধন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি ঘাটাইল পৌরসভায় শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে দেউলাবাড়ি ইউনিয়ন আ’লীগের দোয়া মাহফিল এবং কেক কাটা অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে ভুমিহীনদের মাঝে ঘর হস্তান্তর। স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে গাছ কাটা ও বাড়িঘর ও লুটপাটের অভিযোগ তরুণ ও শিক্ষিত মেধাবীদেরকে দলে জায়গা দিতে হবে: কৃষিমন্ত্রী ভিপি রুবেলের পক্ষে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত -একাত্তরের কন্ঠ ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এস.এম রকিবুল হাসান (মানিক)। বেলায়েত হোসেনকে কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চান এলাকাবাসী। নির্মান প্রকৌশল শ্রমিক ইউনিয়নে টেলিভিশন প্রদান।

স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে গাছ কাটা ও বাড়িঘর ও লুটপাটের অভিযোগ

রাফসান সাইফ সন্ধিঃ টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে একজন স্কুল শিক্ষিকার বিরুদ্ধে গাছ কাটা ও বাড়িঘর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে। ঘাটাইল উপজেলার দিঘলকান্দি ইউনিয়নের বেয়ারা গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যায়। বেয়াড়া গ্রামের প্রবাসী শহিদুল ইসলামের স্ত্রী লাইলী বেগম জানান, আমার স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর প্রতিবেশী এলিজা আক্তার তার পরিবারের ওপর অত্যাচার শুরু করে। বিষয়টি নিয়ে প্রথমে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কে জানালে তিনি বেশ কয়েকবার এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তি নিয়ে সালিশের আয়োজন করেন তার পরেও এই বিষয়গুলি সুরাহা হয়নি। এদিকে লাইলী বেগম ও তার পরিবারের উপর অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে গেলে তিনি বাড়ি ছেড়ে ঘাটাইল সদরে বাড়ি ভাড়া নেন।
এবিষয়ে লাইলি বেগমের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, আমার স্বামী প্রায় ১৪ বছর যাবৎ বিদেশ থাকেন। আমার স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর থেকেই প্রতিবেশী এলিজা আক্তার এবং তার স্বামী কাইয়ুম আমার স্বামীর অনুপস্থিতিতে আমাদের উপর অত্যাচার শুরু করেন। তারা একের পর এক আমাদের জমি দখল করতে থাকেন। কিছু বলতে গেলেই মেরে ফেলার হুমকি দেন। আমি ওদের ভয়ে গ্রাম ছেড়ে ঘাটাইল সদরে এসে দুটি বাচ্চা নিয়ে বাসা ভাড়া করে থাকি। তারপরেও তাদের অত্যাচার থেমে থাকেনি। গত ৬ সেপ্টেম্বর আমার জায়গার ১০ টি গাছ কেটে নেয় রাতের অন্ধকারে এবং আমার বন্ধ ঘরে তালা ভেঙে লুটপাট করে। এসব বিষয়ে বারবার এলাকার চেয়ারম্যান ও মাতাব্বররা অনেক সালিশ দরবার করলেও কোনো কাজ হয়নি। কারো কথার তোয়াক্কা না করে তিনি তার অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছেন ।
গত ৬ সেপ্টেম্বর আমার জায়গার গাছ রাতের আধারে কেটে ফেলে এবং বাড়ী -ঘরে লুটপাট করে।আমি এসব অত্যাচার সহ্য করতে না পেরে গত ৮ সেপ্টেম্বর এলিজা গং এর বিরুদ্ধে টাঙ্গাইল বিজ্ঞ আদালতে মামলা করি। মামলা নং সিআর ৩৪৮/২১।মামলাটি তদন্ত অবস্হায় আছে। অভিযুক্ত এলিজার কাছে এবিষয়ে জানতে চাইল তিনি বলেন, গাছ গুলো ইজমাইলি সম্পত্তির তাই কেটেছি। কিন্তুু ইজমাইলি সম্পত্তি কারো ব্যক্তিগত নয় অনেকের অংশ থাকে তাহলে আপনি কেনো গাছ কাটলেন, সে বিষয়ে এলিজ কে জিজ্ঞেস করলে সে কোনো উওর দিতে পারেনি। এ বিষয়ে দিগলকান্দি ইউপি চেয়ারম্যানে হিটলুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা এলিজার বিষয়ে অনেক দরবার সালিশ করেছি তাকে থামানো যাচ্ছে না, কেউ কিছু তার বিরুদ্ধে বললে মামলা ঠুকে দেন। এভাবে তিনি অনেকের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমার ইউনিয়নে অশান্তি সৃষ্টি করছেন।
এলাকাবাসীর পক্ষে মোঃ মজিবুর রহমান বলেন, এলিজা একজন অত্যাচারী মহিলা, তিনি একটি স্কুলে শিক্ষকতা করেন। লাইলী বেগম তাঁর ভয়ে এলাকা ছাড়া হয়েছেন, লাইলী বেগম বাড়িতে না থাকার কারণে এলিজা তার গাছ কেটে নিচ্ছেন এবং বাড়িঘরে লুটপাট চালাচ্ছে। তার বিরুদ্ধে কিছু বলতে গেলে তিনি এলাকাবাসীর বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেন। যার কারণে এলাকাবাসী মুখ খুলতে সাহস পায় না। এছাড়া এলাকাবাসীর অভিযোগ তিনি মাদক ব্যবসার সাথে জড়িত। যার কিছুই ছিল না তিনি অল্পদিনেই দোতলা বিল্ডিং এর মালিক হয়েছেন।মামলার তদন্তকারী অফিসার এস.আই আল-আমিন বলেন, মামলার তদন্ত চলছে, তদন্ত শেষে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।