Logo
শিরোনাম
ভিপি রুবেলের পক্ষে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত -একাত্তরের কন্ঠ ৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী এস.এম রকিবুল হাসান (মানিক)। বেলায়েত হোসেনকে কাউন্সিলর হিসেবে দেখতে চান এলাকাবাসী। নির্মান প্রকৌশল শ্রমিক ইউনিয়নে টেলিভিশন প্রদান। আবারও সাবেক মেয়র মুক্তির জামিন ১৪ দফায় নামঞ্জুর মেয়রপ্রার্থী লিপুর পক্ষে ঘাটাইলে অটোরিকশা চালকদের শোডাউন। বানারীপাড়ায় অধ্যক্ষ নিজাম উদ্দিনের জানাজায় হাজারো মানুষের ঢল দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে আইনি নোটিশ। পরিষদের কাজে উপজেলা চেয়ারম্যানের অনুমোদন নেবেন ইউএনও। ঘাটাইল রিপোর্টার্স ইউনিটির অফিস পরিদর্শনে কাজী আরজু।

ঘাটাইলে বিএনপি নেতার আ’লীগের পদবী ব্যবহারে ফেস্টুন টাঙানোয় তোলপাড়।

টাঙ্গাইলেরর ঘাটাইল উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়ন বিএনপির এক প্রভাবশালী ব্যক্তির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগের পদবী ব্যবহার করে পোস্টার ও ফেস্টুন টাঙিয়ে এলাকায় প্রচারণা চালানোর অভিযোগ উঠেছে। এঘটনাকে কেন্দ্র করে স্থানীয় বিএনপি ও আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের মাঝে ব্যাপক আলোচনা।

জানা গেছে,আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ও জাতীয় শহীদ দিবস উপলক্ষে উপজেলার দেওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-আহবায়কের পদ ব্যবহার করে মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম নামের এক ব্যক্তি আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্থানীয়ভাবে পোস্টার ও ফেস্টুন তৈরি করে এলাকার প্রচারণা চালাচ্ছে। বিষয়টি স্থানীয় বিএনপি, আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের নজরে এলে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার তৈরি করেছে।

এবিষয়ে দেওপাড়া ইউনিয়নবিএনপির সভাপতি আব্দুস সালাম মুঠোফোনে জানান, আওয়ামী লীগ নেতার দাবীদার মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম আমার সংগঠনের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক। বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনের সময়ে সে আমাদের দল থেকে চলে যায়। বিষয়টি নিয়ে সাংগঠনিক কোন ব্যবস্থা নেইনি বা তার কাছ থেকেও পদত্যাগ পত্র পাইনি।

দেওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট রেজাউল করিম বাদশা জানান, আওয়ামী লীগের পদ ব্যবহারকারী শামীম পারিবারিকভাবে বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত। আমাদের সংগঠনের তার কোন প্রকার প্রাথমিক সদস্য পদও নেই। বিষয়টির আমরা তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শহীদুল ইসলাম লেবু জানান, মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম আমাদের সংগঠনের সদস্য নয়। শামীম বিএনপি জামায়াত জোট সরকারের সময়ে পুরান ঢাকায় দীর্ঘদিন অবস্থান করেছিল। সেসময় সেখানে নানা বিষয়গুলো নিয়ে ওই এলাকায় তার বিরুদ্ধে একাধিক মামলাও রয়েছে। সে পোস্টার ও ফেস্টুন ছাপিয়ে স্থানীয় নেতাকর্মীদের মধ্যে বিভ্রান্তি তৈরির অপচেষ্টা চালাচ্ছে।

এই ব্যাপারে অভিযুক্ত মোহাম্মদ দেওয়ান মারুফ শামীম বলেন, ঘাটাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক কমিটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেয় কিভাবে? আর আমি অনেক আগেই বিএনপি থেকে চলে এসেছি।

দেওয়ান মারুফ শামীম আরও জানান, ঘাটাইল উপজেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের দুইটি কমিটি। একটি কমিটির নেতৃবৃন্দকে নেতৃত্ব দেন উপজেলা চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম লেবু এবং আরেকটি অংশের নেতাকর্মীদের নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন সদ্য প্রয়াত সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম খান সামু। আমি নজরুল ইসলাম খান সামুর নেতৃত্বে ২০১৫ সালে গঠিত দেওপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ন আহব্বায়ক। এটি নিয়ে বিভ্রান্তির কিছু নাই বলে দাবী করেন তিনি।